এবার বিএনপির প্রতি যে আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপি যেহেতু নির্বাচনে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সেহেতু তাদের প্রতি আহ্বান থাকবে, তারা যেন নির্বাচন বানচালের চেষ্টা না করে। তাদের উচিত সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সহায়তা করা।বৃহস্পতিবার ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভার সূচনা বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এই সভায় অংশ নেয়া উপলক্ষে প্রায় এক বছর ১০ মাস পর ধানমন্ডিতে দলীয় সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আসেন তিনি।দলের সংসদীয় বোর্ডের এ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সাজেদা চৌধুরী, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, কাজী জাফরুল্লাহ, ওবায়দুল কাদের, ড. আব্দুর রাজ্জাক, কর্নেল (অব.) ফারুক খান, রাশিদুল আলম প্রমুখ।প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০১৪ সালে আগুন সন্ত্রাস করে বিএনপি নির্বাচন বন্ধ করতে চেয়েছিল, পারেনি। এবারও পারবে না। আগামীতেও না।

Loading...

কারণ, জনগণ আমাদের সঙ্গে আছে। জনগণ চায়, একটা উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন হোক। যে নির্বাচনে তারা ভোট দিয়ে তাদের মনের মতো সরকার গঠন করবে।নির্বাচনে সব দল আসার ঘোষণায় দেশে উৎসবমুখর পরিবেশ তৈরি হয়েছে মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেন, ঠিক এ সময় নয়াপল্টনের ওই ঘটনা ঘটলো। জনগণ যখন উৎসবমুখর হয় তখন তো বিএনপির খুব খারাপ লাগে। তারা সেই উৎসবে পানি ঢালে। বিএনপির এক নেতা তার মিছিল নিয়ে এলো। তারপর পুলিশের সঙ্গে মারপিট। অনেক পুলিশ সদস্যকে পিটিয়ে আহত করলো, সরকারি তিনটা গাড়িও পোড়ালো। ২০১৪-২০১৫ সালের আদলে গত বুধবার অগ্নিসন্ত্রাস করে আবার প্রমাণ করলো মানুষকে আগুন দিয়ে পোড়ানো ছাড়া বিএনপি কোনও কাজ করতে পারে না।

Loading...