গাড়ি থেকে নেমে যানজট নিয়ন্ত্রণ করলেন আতিকুল ইসলাম

ব্যক্তিগত কাজে রোববার দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচা এলাকা দিয়ে গাড়িতে যাচ্ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী হিসেবে আলোচনায় থাকা আতিকুল ইসলাম।শিল্পকলা একাডেমির পাশে ভয়াবহ যানজটের কবলে পড়েন বাংলাদেশ তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রফতানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সাবেক এ সভাপতি। অসংখ্য প্রাইভেট কারসহ অন্য গাড়িতে সৃষ্টি হয় যানজট।

সঙ্গে আটকা পড়ে আতিকুল ইসলামের গাড়িও।এমন যানজট দেখে নিজেই নেমে পড়লেন রাস্তায়। বিভিন্ন গাড়ি নির্দেশনা দিয়ে ট্রাফিক লাইন ঠিক করেন। লেন অনুযায়ী যানবাহনগুলোকে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে সিগন্যাল নিয়ন্ত্রণ করেন। হাত উঁচিয়ে গাড়িগুলোকে সামনে যেতে বলেন এবং রিকশাগুলোতে শৃঙ্খলা নিয়ে আসেন। পাশের রাস্তা যানবাহন সচল করে অন্য গাড়িগুলোকে টার্ন নিতে সাহায্য করে পেছনে অপেক্ষমাণ অ্যাম্বুলেন্স যাওয়ার ব্যবস্থা করেন।এ দৃশ্য মোবাইলে ধারণ করেন সেখানে উপস্থিত পথচারী ও যাত্রীরা।

Loading...

পাশাপাশি আতিকুল ইসলামের একান্ত সচিব সাইফুদ্দিন ইমনও তার মোবাইলে এ চিত্র ধারণ করে তার ফেসবুকে ওয়ালে শেয়ার করেন। মুহূর্তেই ছবিগুলো ব্যাপক শেয়ার হতে থাকে।নিজেই রাস্তায় নেমে যানজট নিরসনের বিষয়ে আতিকুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, ‘দুপুরের দিকে কাজে বের হয়ে শিল্পকলা একাডেমির পাশে তীব্র যানজটের কবলে পড়ি। অসংখ্যা গাড়ি সেই যানজটে আটকা ছিল, ছিল রোগীসহ অ্যাম্বুলেন্সও।এ অবস্থা দেখে আমি নিজেই রাস্তায় নেমে যানজট নিরসনে কাজ করছিলাম। আমার এমন পদক্ষেপ দেখে আরও অনেকেই এসে যানজটা নিরসনের জন্য গাড়িগুলোর শৃঙ্খলা ফেরাতে ট্রাফিকের মতো সিগন্যাল লেন ঠিক রাখতে কাজ করেন।

গাড়িগুলোকে ফের চলতে সাহায্য করেছে। ফলে ওই অ্যাম্বুলেন্সসহ অন্য গাড়িগুলো যানজট থেকে কিছুটা মুক্তি পায়। এ শহরটা আমাদের এখানে যানজট একটা সমস্যা। আমরা সবাই যদি একটু সচেতন হই। নিজেরা যদি কিছুটা উদ্যোগী হই। তাহলেই কিন্তু যেকোনো সমস্যা সমাধান করা সম্ভব।’ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী হিসেবে আলোচনায় থাকা বাংলাদেশ তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রফতানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সাবেক সভাপতি আতিকুল ইসলাম উপ-নির্বাচন উপলক্ষে জনসংযোগের মাধ্যমে চলতি বছরের শুরুতে আলোচনায় আসেন।

Loading...