‘নামাজের কথা বলাতে তাকে আটক করা হলো?’

ড. মুহাম্মাদ জাফর ইকবালের কক্ষ থেকে হামলার সন্দেহে এক শিক্ষার্থীকে আটক করার সংবাদ পড়ে ফেসবুকে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন মডেল ও অভিনেত্রী নাজনীন আক্তার হ্যাপি।

গত ৭ মে রাকিব নামের এক শিক্ষার্থী দুপুরে জাফর ইকবালের সঙ্গে দেখা করে দোয়া নিতে আসেন। এ সময় জোহরের আজান দিলে তিনি ড. মুহাম্মাদ জাফর ইকবালকে নামাজের কথা বলেন। এতে সন্দেহ হলে পুলিশ তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে যায়।

এ সংবাদ পড়ে হ্যাপি তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, ‘সিরিয়াসলি? নামাজের কথা বলাতে তাকে আটক করা হলো? নামাজের কথা বলাতে সন্দেহ হলো? এই নিউজটা প্রথমে দেখে ভেবেছিলাম, ছেলেটার পকেটে বা হাতেটাতে কোথাও বোধহয় ছুরি কাঁচি ছিল। ট্রাস্ট মি, ভেতরে ঢুকে এমন নিউজ দেখার জন্য রেডি ছিলাম না। মানে এটা কি ছিল? ছিঃ।’

কয়েক বছর আগে চলচ্চিত্র থেকে বিদায় নিয়ে ধর্ম কর্মে মনোনিবেশ করেন নাজনীন আক্তার হ্যাপি। নিজের নাম বদল করে রাখেন আমাতুল্লাহ।

প্রিয় ডট কম