শাহবাগে দোকানের ছুরি দিয়েই দোকানদারকে হত্যা করেন

রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে ছুরি বিক্রেতা এক হকারের ছুরি কেড়ে নিয়ে গলায় চালিয়ে দিয়ে তাকে হত্যা করেছে এক ব্যক্তি। হত্যাকারী ওই ব্যক্তি মাদকাসক্ত বলে ধারণা পুলিশের। আজ মঙ্গলবার সকালে শাহবাগ ফুট ওভারব্রিজে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

নিহত ওই হকারের নাম নূর নবী (২৩)। তিনি ফুট ওভার ব্রিজের ওপর নিয়মিত বসে জিনিসপত্র বিক্রি করতেন। হত্যাকারী ওই ব্যক্তির নাম খায়রুল আনাম (৪৩)। ঘটনার পরপরই তাকে পিটুনি দিয়ে পুলিশে দেয় স্থানীয় জনতা।

Loading...

নূর নবী ৪ বছর অাগে জীবিকার তাড়নায় এপাড় থেকে ওপাড়, এ ফুটপাত থেকে ওই ফুটপাতে হকারের কাজ করে সর্বশেষ ঠাঁয় নিয়েছিল শাহবাগের ফুটওভার ব্রিজে। বছরখানেক অাগে তার উপার্জনে সাহায্যে করতে যোগ দেন ছোট ভাই শাহপরান। তাদের দুই ভাইয়ের উপার্জিত অায়ে ভালোই চলছিল গ্রামে থাকা মা-বাবা ও ভাই বোনদের জীবন। কিন্তু অাজ সকালেই যেনো সবকিছু ওলট-পালট হয়ে গেছে ছিনতাইকারীর ছুরির অাঘাতে।

নিহতের ছোট ভাই শাহপরান বলেন, সকাল সাড়ে ৬টায় বাসা থেকে বের হয়ে সাড়ে ৭টার দিকে দোকান খুলছিলাম অামরা দুই ভাই। তখনও কোনো কাস্টমার অাসেনি। তাই অামার বড় ভাই মালপত্র রাখার বাক্সের মধ্যে স্কসটেপ লাগাচ্ছিল। এ সময় হেরোইনসির মতো দেখতে ছেঁড়া গেঞ্জি পরা একজন লোক এসে অামাদের দোকানে বিক্রির জন্য বিছিয়ে রাখা ছুরি নিয়ে নাড়াচাড়া করছিল। কিন্তু কোনোকিছু বলছিল না। হাতে ছুরি নিয়ে নাড়াচাড়া করতে দেখে অামার ভাই ভয় পেয়ে যায়। এ জন্য অামার ভাই জিজ্ঞেস করল ছুরি কিনবেন কি-না। এটা বলা মাত্রই লোকটা অামার ভাইয়ের গলার মাঝখানে ছুরি দিয়ে টান মেরে দৌড় দিয়ে চলে যায়।

রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাঈনুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার পরপরই স্থানীয় জনতা খায়রুলকে ধরে পিটুনি দেয়। পরে তাকে আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

Loading...