নারী চিকিৎসক ২ সন্তান রেখে ডাক্তারে সাথে উধাও!

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইর্ন্টানি ডাক্তার রিয়াকে নিয়ে উধাও হয়েছে একই হাসপাতালের কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার (সেকমো) দুই সন্তানের জনক ডা. আবুল কালাম আজাদ। বিষয়টি টক অবদি টাউনে পরিণত হয়েছে। ডা. কালাম দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়ায় জড়িত ছিল বলে অভিযোগ রয়েছে। এর আগে স্ত্রীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সিভিল সার্জন তাকে শোকজ করেছিল।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সাঁথিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ইন্টার্নি চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত আছেন একই উপজেলার কোরিয়াল গ্রামের রিয়া। তার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়ায় জড়িত ছিল একই হাসপাতালে কর্মরত দুই সন্তানের জনক সেকমো ডাঃ আবুল কালাম আজাদ।

এ নিয়ে হাসপাতালে গুঞ্জন হতে থাকে। এরই এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার উভয়েই হাসপাতালে ডিউ্টিতে না আসায় আলোচনা-সমালোচনা হতে থাকে উধাও হওয়ার বিষয়টি। এ সময় ডাঃ আবুল কালাম আজাদ এবং রিয়ার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। জানা গেছে, এর আগেও ডাঃ আবুল কালাম আজাদ একটি বিয়ে করে এক বছর পর ডিভোর্স দেন।

আজাদের স্ত্রী শিক্ষিকা সুমি সাংবাদিকদের বলেন, ‘প্রায় একমাস আগে আমি জানতে পারি রিয়া এবং কালামের পরকীয়ার বিষয়টি। এ ঘটনায় আমি বাধা দেওয়ায় আমার সাথে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ লাগতো। বৃহস্পতিবার লোকমুখে জানতে পারি আমার স্বামী ওই মেয়েকে নিয়ে নাকি উধাও হয়েছে এবং বিয়ে করেছে।’

এ ব্যাপারে সাঁথিয়া হাসপাতালের টিএইচএ ডাঃ মোজাফফর হোসেন জানান, বিষয়টা আমি লোক মুখে শুনেছি। তবে ডাঃ আবুল কালাম আজাদের ডিউটি বাইরে থাকায় ব্যাপারটা সঠিক জানতে পারছি না।