বিয়েতে ‘না’ বলায় তরুণীকে গুলি করে হত্যা করে যুবক!

বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বাড়ি ঢুকে এক তরুণীকে গুলি করেছে এক যুবক। এ সময় বাধা দেয়া ওই তরুণীর বাবা-মাকেও বন্দুকের বাট দিয়ে মেরে মাথা ফাটিয়ে দেয় ওই যুবক।

বুধবার (১১ জুলাই) সন্ধ্যায় মেয়ে শুভলগ্না এবং স্ত্রী শুভ্রাকে নিয়ে কাছাকাছি এক আত্মীয়ের বাড়ি গিয়েছিলেন কোন্নগর পুরসভারই অবসরপ্রাপ্ত ইঞ্জিনিয়ার তুষার চক্রবর্তী। এ সময় বাড়ি ঢুকতে গিয়ে তারা দেখেন গেটের সামনে দাঁড়িয়ে আছে ওই পাড়ারই শেখ সুলতান আলি।

Loading...

আহত শুভলগ্নার বাবা-মা

এ সময় সুলতানকে তার আসার কারণ জিজ্ঞাসা করেন তুষার। অভিযোগ, সুলতান শুভলগ্নাকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকেন। তাতে বাধা দেন তুষারবাবু। শুভলগ্নাও স্পষ্ট জানিয়ে দেন, তিনি বিয়ে করতে রাজি নন। তারপরই মেজাজ হারান সুলতান। কোমর থেকে বন্দুক বের করে শুভলগ্নার মাথায় আঘাত করেন। মেয়েকে মারধর করতে দেখে তাকে বাঁচাতে যান তুষার এবং শুভ্রা। বাধা পেয়ে উন্মত্তের মত বন্দুকের বাট দিয়ে তুষার ও শুভ্রার মাথায় আঘাত করে সুলতান। তারা লুটিয়ে পরতেই শুভলগ্নাকে পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি করেন সুলতান। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার। এ ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে সুলতান।

Loading...