নতুন সড়ক আইন নিয়ে এবার যা বললেন নৌপরিবহন মন্ত্রী

নতুন সড়ক পরিবহন আইনে প্রণয়নে শ্রমজীবীদের কথাও বিবেচনা রাখা হয়েছে উল্লেখ করে নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, বর্তমান শ্রমজীবী বান্ধব সরকার আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় সবসময় আন্তরিক। পরিবহন খাতে নতুন যে আইনের প্রস্তাবনা চূড়ান্ত করা হয়েছে শ্রমজীবী মানুষদের বিষয়টিও সহানুভূতির সঙ্গে বিবেচনায় রাখা হয়েছে।মঙ্গলবার (৮ আগস্ট) কমলাপুর আইসিডি প্রাঙ্গণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত শোক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, তিনি বলেন, বিএনপিসহ কিছু মহল আমার পদত্যাগ নিয়ে নানা মন্তব্য করেছেন। পদত্যাগই সব সমস্যার সমাধান হতে পারে না। সবাইকে একটি শৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে চলতে হবে।তিনি বলেন, যারা বিগত দিনে গাড়িতে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যা করেছে এবং দেশের সম্পদ বিনষ্ট করেছে, তারা আজ একটি দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে জনগণকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে।

ড্রাইভারদের সাবধানে গাড়ি চালানোর পরামর্শ দিয়ে শাজাহান খান বলেন, আমি যতদিন রাজনীতি করবো, ততদিন শ্রমজীবী মানুষের কল্যাণেই কাজ করবো। তবে আপনারা এমন কোনো কাজ করবেন না, যা আমাদের জন্য সমস্যার সৃষ্টি করবে।তিনি বলেন, সরকারের বিরুদ্ধে যতই ষড়যন্ত্র করা হোক না কেন, দেশের জনগণ ও শ্রমজীবী মানুষ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শোককে শক্তিতে পরিণত করে বাংলাদেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্টে নিহত সকলের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে নৌমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না। যারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিল তারাই আবার পরবর্তী সময়ে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা করে শেখ হাসিনাকে হত্যা করার চেষ্টা করেছিল।ঢাকা কাস্টমস এজেন্ট এসোসিয়েশন ও আইসিডি কাভার ভ্যান ট্রাক ট্রেইলার মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ এবং আইসিডি শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে আয়োজিত শোক সভায় সভাপতিত্ব করেন শেখ মোহাম্মদ ফরিদ।