অগ্রিম টিকিট পেতে কমলাপুরে হাজারো মানুষের ঢল

আজ দেওয়া হচ্ছে ১৯ আগস্টের টিকিট। মোট ৩৫টি আন্তঃনগর ট্রেনের জন্য ২৬ হাজার ৮৯৫টি টিকিট বিক্রি হচ্ছে এদিন। টিকিটপ্রত্যাশীরা বৃহস্পতিবার (০৯ আগস্ট) বিকেল থেকে স্টেশনে আসতে শুরু করেন। ভোর হতে না হতে তাদের সারিবদ্ধ লাইন দীর্ঘ হতে হতে স্টেশনের বাইরে চলে যায়।

ঈদুল আজহা উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট নিতে শুক্রবার (১০ আগস্ট) কমলাপুর রেলস্টেশনে ভিড় করছেন হাজারো মানুষ। ছুটির দিন হওয়ায় টিকিট প্রত্যাশীদের ভিড়ে কমলাপুর যেন জনসমুদ্রে পরিণত হয়েছে।

Loading...

উত্তরবঙ্গগামী নীলসাগর ট্রেনের টিকিট পেতে গত রাত ১০টা থেকে অপেক্ষা করছিলেন ওবায়দুর রহমান। তিনি বলেন, সড়ক পথে যানজট, খানা-খন্দ আর ভোগান্তির কারণে রেলপথে এবার মানুষ বেশি ঝুঁকেছে।

কমলাপুর রেলস্টেশন ম্যানেজার সিতাংশু চক্রবর্তী বলেন, আগামী ১৯ আগস্ট সারাদেশের উদ্দেশে মোট ৬৮টি ট্রেন ছেড়ে যাবে। এর মধ্যে ৩৫টি আন্তঃনগর, বাকিগুলো মেইল ও স্পেশাল সার্ভিস। ওই দিনের জন্য আজ মোট ২৬ হাজার ৮৯৫টি টিকিট বিক্রি হবে।

একইভাবে আগামী ১৫ আগস্ট থেকে ঢাকা ফেরত যাত্রীদের জন্য ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হবে। ১৬, ১৭, ১৮ ও ১৯ আগস্ট যথাক্রমে পাওয়া যাবে ২৫, ২৬, ২৭, ২৮ আগস্টের টিকিট।

বুধবার (০৮ আগস্ট) সকাল ৮টা থেকে শুরু হওয়া আগাম টিকিট বিক্রি চলবে আগামী সোমবার (১২ আগস্ট) পর্যন্ত। আগামীকাল শনিবার (১১ আগস্ট) দেওয়া হবে ২০ আগস্টের টিকিট, রোববার দেওয়া হবে ২১ আগস্টের আগাম টিকিট।

ছোট বাচ্চা থাকার কারণে গতবার ঈদে বাড়ি যাইনি, এবার যেহেতু কোরবনি ঈদ তাই যেতেই হবে, যে কারণে শত ভোগান্তি উপেক্ষা করে টিকিটের লাইনে দাঁড়িয়েছি।

ওবায়দুর রহমান আরও বলেন, গতরাত ১০টার দিকে যখন টিকিট কাউন্টারের সামনে এলাম তখনই স্টেশনে শত শত মানুষ। সকাল ৮টায় টিকিট বিক্রি শুরু হলেও আমার সিরিয়াল এখনও অনেক জনের পরে। শেষ পর্যন্ত কাঙ্ক্ষিত টিকিট পাবো কি না এটা নিয়েই চিন্তিত।

Loading...