এবার বিচ্ছেদের পর মুক্ত অপু বিশ্বাস নিজের ও সন্তানের খরচ চালানোর জন্য যা করছেন!

বিয়ের খবর জনসমক্ষে আসার পর দুজনের সম্পর্কের টানাপোড়েন তৈরি হয়। পরিস্থিতি এমন অবস্থায় পৌঁছায় যে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস নিজেদের মধ্যে মুখ দেখাদেখি বন্ধ করে দেন।

পরবর্তীতে অপু বিশ্বাসের বয়ফ্রেন্ডের প্রসঙ্গে টেনে অপুর সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নেন শাকিব। বিচ্ছেদের নোটিশ পাঠায় অপুর বাড়িতে। চলতি বছর ১২ মার্চ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিবাহবিচ্ছেদ হলো তাঁদের।

২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল গোপনে বিয়ে করেন বাংলাদেশি ছবির জনপ্রিয় জুটি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর জন্ম হয় তাঁদের সন্তান আব্রাম খান জয়। শাকিব-অপু দুজনেই সন্তানের জন্মের বিষয়টি গোপন রাখেন।

গত বছর ১০ এপ্রিলে একটি টিভি চ্যানেলের সরাসরি অনুষ্ঠানে এসে বিয়ে ও সন্তানের খবর ফাঁস করেন অপু বিশ্বাস। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিল ছয় মাস বয়সী ছেলে আব্রাম। সেদিন অপু বলেন, ‘আমি শাকিবের স্ত্রী, আমাদের ছেলে আছে।’

বিচ্ছেদের পর মুক্ত অপু বিশ্বাস। আর আগের মত বাধা নেই কার সাথে মিশবেন, কার সাথে কাজ করবেন। এদিকে শাকিব থেকে আর খরচের টাকাও নাকি নিচ্ছেন না এক সময়ের চলচ্চিত্রের রানী অপু বিশ্বাসের।

গানকেন্দ্রিক অনুষ্ঠান, কিন্তু সেখানে দেখা যায়নি কোনো গানের তারকা শিল্পী-কুশলীকে। অনুষ্ঠানের কেন্দ্রবিন্দু ছিলেন অপু বিশ্বাস। তবে জানা গেছে, অপু বিশ্বাস বেশ বড় অঙ্কের একটি সম্মানীর বিনিময়েই এ আয়োজনে যোগ দিয়েছিলেন।

তাই নিজের ও সন্তানের খরচ চালানোর জন্য হাতের কাছে যেই কাজই পাচ্ছেন সেটাই নাকি এখন লুফে নিচ্ছেন।যেকোনো অনুষ্ঠান বা আয়োজনে ডাকলেই ছুটে যাচ্ছেন তিনি।

বিষয়টি সিনেমাওয়ালাদের কাছে বেশ বিস্ময়কর মনে হচ্ছে। কানাঘুষায় অনেকেই বলছেন, তারকা এ অভিনেত্রী সবার ডাকে সাড়া দিয়ে অপু নিজেকে অনেকটা সহজলভ্য করে ফেলছেন না তো ?

হালে এসএস মাল্টিমিডিয়া হাউস নামে ইউটিউবকেন্দ্রিক একটি নতুন মিউজিক কোম্পানির যাত্রা শুরু হয়েছে গুলশানের একটি রেস্টুরেন্টে আয়েশী খাওয়াদাওয়ার মধ্য দিয়ে।