দুই টেস্ট ও তিন ওয়ানডের সিরিজ খেলতে আগামী অক্টোবর বাংলাদেশে আসবে জিম্বাবুয়ে!

বাংলাদেশ সফরের আগে দক্ষিণ আফ্রিকায় তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি ম্যাচের সিরিজ খেলবে জিম্বাবুয়ে। ঘোষণা করা হয়েছে সেই সফরের দলও। বাংলাদেশ সফরের দলে না থাকলেও দক্ষিণ আফ্রিকায় টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে আছেন অভিজ্ঞ চামু চিবাবা ও ক্রিস এমপোফু।

কোচের দায়িত্ব পাকাপাকি পাওয়ার পর লালচাঁন রাজপুতের প্রথম দুই অভিযান এই দুই সফর। আপাতত জিম্বাবুয়ের কোচিং স্টাফে একমাত্র সদস্য তিনিই। বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব উতরাতে না পারার পর ছাঁটাই করা হয়েছিল সবাইকে। এই দুই সিরিজের আগে নিয়োগ দেওয়া হবে অন্যান্য কোচদের।

Loading...

দুই টেস্ট ও তিন ওয়ানডের সিরিজ খেলতে আগামী ১৬ অক্টোবর বাংলাদেশে আসবে জিম্বাবুয়ে দল। ২১ অক্টোবর তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু মিরপুরে। ২৪ ও ২৬ অক্টোবর পরের দুটি ওয়ানডে চট্টগ্রামে। ৩ নভেম্বর থেকে প্রথম টেস্ট সিলেটে, যে ম্যাচ দিয়ে টেস্ট অভিষেক হবে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের। ১১ নভেম্বর থেকে দ্বিতীয় টেস্ট মিরপুরে।

টেস্ট দল: হ্যামিল্টন মাসাকাদজা (অধিনায়ক), ব্রায়ান চারি, ক্রেইগ আরভিন, ব্রেন্ডন টেইলর, শন উইলিয়ামস, পিটার মুর, রেজিস চাকাভা, ডোনাল্ড তিরিপানো, কাইল জার্ভিস, ব্র্যান্ডন মাভুতা, রিচার্ড এনগারাভা, জন নিয়ুম্বু, ওয়েলিংটন মাসাকাদজা, রায়ান বার্ল, তেন্ডাই চাতারা।

ওয়ানডে দল: হ্যামিল্টন মাসাকাদজা (অধিনায়ক), সলোমন মিরে, ক্রেইগ আরভিন, ব্রেন্ডন টেইলর, শন উইলিয়ামস, পিটার মুর, এল্টন চিগুম্বুরা, ডোনাল্ড তিরিপানো, কাইল জার্ভিস, ব্যান্ডন মাভুতা, রিচার্ড এনগারাভা, জন নিয়ুম্বু, ওয়েলিংটন মাসাকাদজা, তারাসাই মাসাকান্দা, তেন্ডাই চাতারা, সেফাস জুয়াও।

স্পিন খেলায় জিম্বাবুয়ের সবচেয়ে দক্ষ ব্যাটসম্যানদের অন্যতম বলে বিবেচনা করা হয় তিন জনকেই। পাশাপাশি উইলিয়ামসের বাঁহাতি স্পিনও যথেষ্ট কার্যকরী। বাংলাদেশের সফরের দলে তিন জনই তাই দারুণ সংযোজন জিম্বাবুয়ের জন্য।

সাময়িক স্বেচ্ছা বিরতি শেষে দলে ফিরেছেন ব্রেন্ডন টেইলর, ক্রেইগ আরভিন ও শন উইলিয়ামস। বাংলাদেশ সফরের টেস্ট ও ওয়ানডে, উভয় দলেই জায়গা পেয়েছেন এই তিন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার।

বেতন ভাতা নিয়ে অনিশ্চয়তায় গত জুলাইয়ে দেশের মাটিতে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন এই তিন জন।

Loading...