ধর্ষণের অভিযোগ মিথ্যা, যা হয়েছিল দু’পক্ষের সম্মতিতেই

সপ্তাহ দুয়েক আগে রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলে সরব হয়েছিলেন মার্কিনি এক তরুণী। ‘দেয়া স্পিগে’ নামক জার্মান এক ম্যাগাজিনে মার্কিনি তরুণী ক্যাথরিনের একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হয়। যেখানে ওই তরুণী দাবি করেছিলেন, ২০০৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে একটি হোটেলে তাঁকে ধর্ষণ করেন রোনাল্ডো। এরপর থেকেই ফুটবল তারকার সঙ্গে ওই মার্কিনি তরুণীর সম্পর্ক নিয়ে চাপানউতোর শুরু হয় ফুটবল মহলে। কিন্তু প্রাথমিক ভাবে এই অভিযোগ ‘ভিত্তিহীন’ বলে উড়িয়ে দেন রোনাল্ডো।

২০০৯ ক্যাথরিনের সঙ্গে রোনাল্ডোর শারীরীক সম্পর্ক হয়েছিল দু’পক্ষের সম্মতিতেই। অর্থাৎ ক্রিশ্চিয়ানোর বিরুদ্ধে আনা ধর্ষণের অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, এমনটাই দাবি করলেন রোনাল্ডোর আইনজীবী।

Loading...

পর্তুগিজ ফুটবল তারকা রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে যে ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছিল, তা সম্পূর্ণ সাজানো এবং মিথ্যা। এই মর্মে রোনাল্ডোর আইনজীবী পিটার এস ক্রিশ্চিয়ানসেন একটি বিবৃতিতে জানান, লিকস নামক ওয়েবসাইট এবং জার্মান এক ম্যাগাজিনে রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে ক্যাথরিনের যে সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হয়েছিল, তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। ক্যাথরিনের সঙ্গে যৌনমিলনে ক্রিশ্চিয়ানো লিপ্ত হয়েছিলেন ঠিকই, কিন্তু তা দু’পক্ষের সম্মতিতেই।

Loading...