আমি ভাবতেও পারিনি, এমন বিখ্যাত ক্রিকেটার আমার সঙ্গে নোংরা কিছু করতে পারে!’

শিশু বা নাবালকের সাথে অনুপ্রেরণা দিয়ে যৌন কাজে লিপ্ত হলে তাকে শিশু যৌন নির্যাতন বা বিশেষ আইনের আওতায় ধর্ষন বলা হয়।

এবার লঙ্কান গতিদানব লাসিথ মালিঙ্গার বিরুদ্ধে উঠল যৌন নিপীড়নের অভিযোগ! আর এই অভিযোগ তুলেছেন এক ভারতীয় নারী! তিনি টুইটারে সেদিনের যৌন হয়রানির ঘটনার বর্ননা দিয়েছেন।

Loading...

অভিযোগ করে সেই নারী লিখেছেন,অভিযোগকারী তরুণী বলেছেন, ‘কয়েক বছর আগে মুম্বাইয়ে ঘটেছিল এ ঘটনা। আমরা যে হোটেলে ছিলাম, সেখানে আমার বান্ধবীকে খুঁজছিলাম।

যখন প্রত্যক্ষভাবে স্বল্প সময়ের জন্যে অথবা পরোক্ষভাবে জোর করা হয় তখন তাকে যৌন লাঞ্ছলা বলা হয়। অপরাধীকে যৌন নির্যাতক (যদি হানিকরও হয়) বা উৎপীড়ক বলে অভিহিত করা হয়।

যৌন নির্যাতনের হার দিনে দিনে বেড়েই যাচ্ছে। আগে জানা দরকার যৌন নির্যাতন আসলে কি? সাধারনত একজনের উপর অন্যজনের চাপিয়ে দেওয়া অনিচ্ছাকৃত যৌন আচরণকে যৌন নির্যাতন বা উৎপীড়ন বলা হয়।

যদি কোন প্রাপ্তবয়ষ্ক লোক বা তরুণ কোন শিশুকে যৌন কাজে লিপ্ত হওয়ার জন্যে অনুপ্রেরণা দেয় তাকেও যৌন নির্যাতন বলা হবে।

এমন সময় মুম্বাইতে খেলা খুবই বিখ্যাত এক শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারের সঙ্গে দেখা হলো। তখন আইপিএল চলছিল। তিনি বললেন, আমার বান্ধবী নাকি তার রুমেই আছে।

‘সেই ঘটনায় আমি ভীষণ অপমানিত বোধ করছিলাম। আমি জানি সবাই বলবে, আমি জেনে বুঝেই সেখানে গিয়েছি। সে বিখ্যাত, তাই আমিই কিছু করতে চেয়েছিলাম বলে অভিযোগ তুলবে সবাই।

কিংবা বলবে তোমার সঙ্গে এর চেয়েও ভয়ংকর কিছু হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু আমি ভাবতে পারিনি, এমন বিখ্যাত ক্রিকেটার আমার সঙ্গে নোংরা কিছু করতে পারে!’

আমি তার রুমে গেলাম, কিন্তু সেখানে আমার বান্ধবী ছিল না।’ ‘কিছু বুঝে ওঠার আগেই সেই ক্রিকেটার তখন আমাকে ধাক্কা দিয়ে বিছানায় ফেলে দেয় এবং আমার বুকের ওপর চড়ে বসে।

আমি তার সঙ্গে গায়ের জোরে পেরে উঠছিলাম না। ভয়ে মুখ ও চোখ বন্ধ করে ফেলেছিলাম। সেই ক্রিকেটার আমার গালে নোংরা কিছু করছিল।

এমন সময় হোটেলের কর্মচারী রুমের বারের জন্য কিছু জিনিস নিয়ে এসে দরজায় নক করে। ক্রিকেটার দরজা খুলতে যায়। আমি দ্রুত বাথরুমে গিয়ে হাত-মুখ ধুয়ে হোটেল কর্মচারীর সঙ্গে বেরিয়ে যাই।’

Loading...