‘নভেম্বর থেকে ফেসবুক-গুগল-ইউটিউব আমাদের হাতে নিয়ন্ত্রণ থাকবে’

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী অপতৎপরতা রুখতে সমন্বিতভাবে কাজ করা হবে বলে জানিয়েছেন ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। শনিবার (২০ অক্টোবর) সন্ধ্যায় জাতীয় জাদুঘরে ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।তথ্য প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘সামনের মাস অর্ধেক বা তারপর থেকে আমাদের হাতে নিয়ন্ত্রণ থাকবে।

আমরা ফেসবুক, গুগল বা ইউটিউব নিজেরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারব। আমরা টেকনোলজি এখন নিচ্ছি, টেকনোলজি তৈরি করে এখন আমাদের বসানোর কাজটা আছে। ২২ তারিখে আমাদের যন্ত্রপাতি ঢাকায় পৌঁছবে। এখন আমরা যদি ঠিকমত প্রয়োগ করতে পারি বড়জোর নভেম্বরের ১৫ তারিখ পর্যন্ত থাকবে। যখন আমরা আমদের মত করে অপপ্রচার, গুজব সেগুলো আমরা রুখতে পারবো।’এদিকে, রাজধানীর ডুমনিতে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের টায়ার ফোর ডাটা সেন্টারের উদ্বোধন করেন মন্ত্রী।

Loading...

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘ডিজিটালাইজেশনের ফলে বাংলাদেশ একটি ক্যাশলেস সোসাইটির দিকে ধাবিত হচ্ছে। ডিজিটালাইজেশনের ফলে ২০০৯ সালের পর থেকে আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহে অভাবনীয় রূপান্তর হয়েছে। ডিজিটাল ব্যাংকিং দেশের সাধারণ মানুষের অতি পরিচিত ও জনপ্রিয় একটি সেবায় রূপান্তরিত হয়েছে।’তিনি জানান, দেশে ডিজিটাল সেবা সম্প্রসারণের ফলে ডিজিটাল অপরাধও বাড়ছে।

আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল নিরাপত্তা অধিকতর নিশ্চিত করার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করে মন্ত্রী বলেন, ‘বাইরের প্রযুক্তি বা সফটওয়ার ব্যবহারের একসময় প্রয়োজন ছিল। কিন্তু প্রযুক্তি ব্যবহারের জন্য নিজেদের মানুষকে গড়ে তুলছি কি না, সে জায়গাটায় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। ব্যাংকিং খাতের নিরাপত্তার সাথে রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা জড়িত। কাজেই নিরাপত্তা বিধানে নিজেদের সচেষ্ট হতে হবে।’

Loading...