যেমন কাটছে ওবায়দুল কাদেরের দিন

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক দলের সাধারণ সম্পাদক, সরকারের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী তিনি। সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠতে হয়। তারপর কিছুটা হাঁটাহাঁটি করে নাস্তা সারতেন।রুটিন মাফিক না চললে কি এত গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সামলানাে যায়? মুখে রাখা যায় নির্মল হাসি? শত শত কাজের ব্যস্ততায় ফুরসত হয়তাে খুব একটা মিলতাে না।

আজ সেই ওবায়দুল কাদের অলস সময় কাটাচ্ছেন। সেই সময়টা তার কেমন কাটছে? ওবায়দুল কাদের এখনও প্রতিদিন একটু আধটু হাঁটছেন। আশেপাশে থাকা ঘনিষ্ঠজনদের সঙ্গে কথা বলে সময় পার করছেন। আর প্রতিদিন ভােরে ঘুম থেকে ওঠা তার দীর্ঘদিনের অভ্যাস।

সে হিসেবে ভােরের আলাে ফুটবার সঙ্গে সঙ্গে তার দিন শুরু হয়। ভাড়া বাসার আশেপাশে, কখনাে পার্কের সবুজে নিয়মিত হাঁটাচলা করছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তার সঙ্গে সার্বক্ষণিক থাকছেন তার স্ত্রী ইসরাতুন্নেসা কাদের।

এছাড়া ব্যাক্তিগত তিন থেকে চার জন কর্মকর্তা তাকে দেখেশুনে রাখছেন। দেশ থেকে যাওয়া একজন বাবুর্চি তাকে রান্নাবান্না করে খাওয়াচ্ছেন।অপেক্ষা করে আছেন কবে প্রিয় বাংলাদেশে ফিরতে পারবেন। জানা গেছে, এপ্রিলের শেষদিকে তিনি দেশে ফিরতে পারেন।

এর আগে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে ডাক্তাররা আগে জানিয়েছিলেন ওবায়দুল কাদের মধ্য এপ্রিলে দেশে ফিরে যেতে পারবেন। সে হিসেবে এখন তার দেশে আসার কথা। তবে এ সপ্তাহে নয়, তারিখ পেছাতে হচ্ছে। এই মাস শেষ হলে যেকোন দিন তিনি ফিরতে পারেন- এমন সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন সেখানে থাকা মন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ একজন।