বিশ্বকাপে ক্রিকেটারদের স্ত্রী ও বান্ধবীদের নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিলো ভারত

বিশ্বকাপ সফরে কি সর্বক্ষণ বিরাট কোহলির সঙ্গেই দেখা যাবে অনুষ্কা শর্মাকে? কিংবা ঋতিকা ও সাক্ষী কি গোটা টুর্নামেন্টটা কাটাবেন রোহিত শর্মা এবং মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গেই? না, ইচ্ছা থাকলেও তেমনটা এবার হবে না।

কারণ ক্রিকেটারদের স্ত্রী এবং গার্লফ্রেন্ডদের নিয়ে বেশ কড়া সিদ্ধান্ত নিলো বিসিসিআই। জানিয়ে দেওয়া হল, বিশ্বকাপ চলাকালীন ১৫ দিনের বেশি ক্রিকেটারদের সঙ্গে থাকতে পারবেন না তাদের স্ত্রী বা বান্ধবী।

৩০ মে ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে শুরু বিশ্ব ক্রিকেটের মহারণ। ইতিমধ্যেই ঘোষিত হয়ে গিয়েছে ১৫ জনের টিম ইন্ডিয়া। স্ট্যান্ড-বাই হিসাবেও পাঁচ তারকাকে বেছে নিয়েছেন জাতীয় নির্বাচকরা। আর এবার ক্রিকেটারদের পরিবার ও প্রেমিকা নিয়েও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিলো ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড।

বিসিসিআইয়ের তরফে জানানো হয়েছে, প্রায় দেড় মাস চলা বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ১৫ দিনই স্বামী বা বয়ফ্রেন্ডের (ক্রিকেটার) সঙ্গে থাকার সুযোগ পাবেন তারা। শুধু তাই নয়, নির্দিষ্ট সময়ও বেঁধে দিয়েছে বোর্ড। ভারতীয় দল যেদিন ইংল্যান্ড উড়ে যাবে, তারপর থেকে প্রথম ২০ দিন ক্রিকেটারের সফরসঙ্গী হতে পারবে না পরিবার। ২০ দিন পরই কাছের মানুষটির সঙ্গে যোগ দেওয়া যাবে।

বিরাট কোহলিই প্রথমে স্ত্রী বা গার্লফ্রেন্ডকে টুর্নামেন্টের সফরসঙ্গী করা নিয়ে আবেদন জানিয়েছিলেন। বলেছিলেন, বিশ্বকাপ চলাকালীন যে কোনও স্ত্রী বা বান্ধবীকে ক্রিকেটারের সঙ্গে থাকার অনুমতি দিতে হবে। প্রাথমিকভাবে সে প্রস্তাবে সম্মতিও দিয়েছিল বোর্ড। তবে বিশ্বকাপের প্রাক্কালে নিয়মে কিছু বদল আনা হল। যা মেনে নিয়েছেন ভারত অধিনায়ক। বিশ্বকাপের শুরুতেই যাতে কোনওভাবে ক্রিকেটারের ফোকাস নষ্ট না হয়, সে কারণেই এই সিদ্ধান্ত বলে খবর।

এখনও পর্যন্ত ঠিক আছে, ২২ মে ইংল্যান্ড যাওয়ার বিমানে উঠবে ভারতীয় দল। পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে দুটি ওয়ার্ম আপ ম্যাচও খেলবে দল। তারপর ৫ জুন ভারতের প্রথম ম্যাচ দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে। ৯ জুন পরের প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া। অর্থাৎ স্ত্রী বা গার্লফ্রেন্ডরা ইংল্যান্ড পৌঁছনোর আগেই লিগ পর্যায়ের দুটি ম্যাচ খেলে ফেলবে ভারত।

তবে সেই সময়ও টিম বাসে যাওয়ার অনুমতি পাবেন না তারা। তাদের জন্য আলাদা গাড়ির ব্যবস্থা থাকবে। গত বছর ইংল্যান্ড ট্যুরে যা হয়েছিল, বিশ্বকাপেও সেই নিয়মই অনুসরণ করতে হবে। অর্থাৎ বিশ্বকাপের প্রতি ম্যাচে যে গ্যালারিতে অনুষ্কা-সাক্ষীদের দেখা মিলবে না, সেটা স্পষ্ট করে দিল বোর্ড।