ফরিদপুর শহরের বনলতা সিনেমা হলে দর্শকদের সঙ্গে সিনেমা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন চিত্রনায়িকা নিপুণ ও চিত্রনায়ক মামনুন হাসান ইমন। বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতের শোতে সাইদুল ইসলাম রানা পরিচালিত ‘বীরত্ব’ সিনেমাটি দেখতে দর্শকদের সারিতে বসে উৎসাহ জোগান তারা।

এ সিনেমায় নিপুণ ও ইমন প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এ সময় তাদের সঙ্গে দর্শক গ্যালারিতে বসে শতাধিক দর্শক সিনেমাটি উপভোগ করেন।

সিনেমাটি নিয়ে চিত্রনায়িকা নিপুণ বলেন, ছবির একটা অংশ নারী পাচার নিয়ে। যেখানে পাচারের পর মেয়েদের পতিতাপল্লিতে বিক্রি করে দেওয়া হয়। ‘

শুটিং করতে গিয়ে সত্যিকারের যৌনকর্মীদের কাছ থেকে তাদের জীবনের গল্প শুনে, সিনেমাটি আমাকে আরও গভীরভাবে টেনেছে। মনে হয়েছে- এ সিনেমার মাধ্যমে সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে তাদের জন্য কিছু একটা করতে পেরেছি।

চিত্রনায়ক ইমন বলেন, কিছু সিনেমা থাকে যা অভিনেতার ক্যারিয়ারে প্লাস পয়েন্ট হিসেবে কাজ করে। ‘বীরত্ব’ আমার জন্য তেমনই এক সিনেমা।

এ কাজটি করার সময় থেকেই নিজের মধ্যে শান্তি পাচ্ছিলাম। দর্শকের কাছে পৌঁছে দিতে পেরে সার্থকতা খুঁজে পাচ্ছি।

সিনেমার পরিচালক সাইদুল ইসলাম রানা বলেন, আমরা ‘বীরত্ব’ টিম নিয়ে হলে হলে ঘুরছি। দর্শকদের চাহিদা ও আগ্রহ বোঝার চেষ্টা করছি। ফরিদপুরের সিনেমা হলে যেমন দর্শক উপস্থিতি দেখছি, তাতে আমরা অভিভূত।

তিনি বলেন, আমার বিশ্বাস আমাদের কষ্ট বিফলে যাবে না। যারা সিনেমাটি দেখেছেন, তারা প্রশংসা করছেন। হল রিপোর্টও ভালো ছিল।

জানা গেছে, ‘বীরত্ব’ সিনেমাটিতে ফরিদপুর জেলা শহরের উত্তর কমলাপুরের ‘আনন্দ কানন’ বাড়িটিতে বেশ কিছু দৃশ্য ধারণ করা হয়েছে। সমাজের জন্য ভালো কিছু বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করেছে সিনেমাটি।

এটি একটি সামাজিক ছবি। বীরত্ব ছবিটির চিত্রায়ন রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ ও ফরিদপুরের বিভিন্ন স্থানে করা হয়েছে। বর্তমানে একযোগে সারা দেশের ৩৪টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে সিনেমাটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.